জেলা গোয়েন্দা পুলিশ, কুমিল্লা কর্তৃক দাউদকান্দিতে রাজন হত্যা মামলার ০৪ জন আসমী ঢাকা হইতে আটক

গত-০৬/০৫/১৭ খ্রিঃ তারিখ বাদীর ছোট ভাই ভিকটিম আমির হোসেন রাজন (৩২), দাউদকান্দি আদর্শ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পালন উপলক্ষে মিলাত মাহফিলের অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য তার গোরীপুর বাজারস্থ ভাড়া বাসা হইতে রওয়ানা করে দাউদকান্দি মডেল থানাধীন, পশ্চিম মাইজপাড়া বলদাখাল রোড হক সাহেবের মসজিদের দক্ষিন/পূর্ব দিকের তিন রাস্তার মাথায় পৌছালে, আসামীগন পূর্ব শত্রুতার জের হিসেবে ভিকটিম রাজনের পথরোধ করতঃ চাপাতি, ছুরি, চাইনিজ কুড়াল, ইত্যাদি প্রাণ নাশক অস্ত্রাদি হাতে নিয়ে আঘাত করতঃ ভিকটিম আমির হোসেন রাজনকে নির্মম ভাবে হত্যা করে। যার প্রেক্ষিতে দাউদকান্দি মডেল থানায় মামলা রুজু হয়। মামলাটি ডিবি, কুমিল্লায় ন্যাস্ত করা হলে, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ শাহ্ কামাল আকন্দ পিপিএম একটানা অভিযান পরিচালনা করে মোবাইল ফোনের কললিস্টের সূত্র মতে ঢাকাস্থ আশুলিয়া থানা পুলিশের সহায়তায় আশুলিয়া থানাধীন, নরসিংদীপুর হতে ২০/০৬/১৭খ্রিঃ গ্রেফতার করেন। ঘটনা সৃষ্টিকারী এজাহার নামীয় আসামী (১) মোঃ মোস্তফা কামাল @ মোস্তাক (৩২), পিতা-খোরশেদ আলম, (২) মোহাম্মদ আলী (২৪), পিতা- খোরশেদ আলম, (৩) স্বপন মিয়া (৪৫), পিতা- খোরশেদ আলম, (৪) আবু তাহের (২৩), পিতা- ইদু মিয়া, সর্ব সাং-কাজিরকোনা, থানা-দাউদকান্দি, জেলা-কুমিল্লাদের মধ্যে আসামী (১) মোঃ মোস্তফা কামাল @ মোস্তাক, (২) স্বপন মিয়া, (৩) আবু তাহের ঘটনার সৃজনকারী হিসেবে সত্যতা স্বীকার করে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, আমলী আদালত নং-০৩, দাউদকান্দি কোর্টে জনাব কাজী আরাফাত উদ্দিন সাহেবের নিকট  ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৬৪ ধারার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

সূত্রঃ-দাউদকান্দি মডেল থানার মামলা নং-১৮, তাং-০৭/০৫/২০১৭খ্রিঃ, ধারা-৩৪১/৩০২/১০৯/৩৪ পেনাল কোড।

Read 10107 times