কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক ১০ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক

কোতয়ালী মডেল থানাধীন ছত্রখীল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ  এস. আই. মোহাম্মদ শাহীন কাদির ২০/৮/২০১৭ তারিখ রাত্র ২০:০৫ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অফিসার ইনচার্জের তত্ত্বাবধানে সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় কোতয়ালী মডেল থানাধীন ০৪ নং ইউপিস্থ পালপাড়া সাকিনের ব্রীজের উত্তর পাড় রাস্তার উপর পৌঁছামাত্র উক্ত স্থান দিয়া চলাচলরত যানবাহনসহ বিভিন্ন লোকজন হইতে হঠাৎ করিয়া দুই জন লোক অর্থাৎ ধৃত আসামী মোঃ সফি উল্ল্যাাহ ও জোসনাদ্বয় পুলিশের উপস্থিতি টের পাইয়া তাহাদের উভয়ের হাতে থাকা কাপড় চোপড় রাখার ব্যাগ নিয়া দৌড়াইয়া পালানোর চেষ্টা করিলে সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় উপস্থিত লোকজনের সম্মুখে আসামীদ্বয়কে ব্যাগসহ হাতে নাতে বর্ণিত স্থানে আটক করে। আসামীদ্বয়ের ব্যাগ তল্লাশী করিয়া দেখা যায় যে, উক্ত ব্যাগের ভিতর ৫টি সাদা রংয়ের পলিথিনে মোড়ানো প্রতি প্যাকেটে ১ কেজি করিয়া মোট ৫ কেজি মাদক দ্রব্য গাঁজা  এবং ধৃত আসামী জোসনার হাতে থাকা কালো রংয়ের ব্যাগের ভিতর থেকে  ৫টি সাদা রংয়ের পলিথিনে মোড়ানো প্রতি প্যাকেটে ১ কেজি করিয়া মোট ৫ কেজি মাদক দ্রব্য গাঁজা সর্বমোট সাড়ে ১০ কেজি অবৈধ গাঁজা পাইয়া আসামী দ্বয়কে আটক করেন। ধৃত মাদক ব্যবসায়ীদ্বয় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তাহাদের নাম ঠিকানা জানায় যে, ১। মোঃ সফিউল্ল্যাহ (৩৪), পিতা-মৃত আলী নেওয়াজ, সাং-শামকসার, ২নং ইউপি, থানা-চৌদ্দগ্রাম, ২।  মোসাঃ জোসনা (৩৬) স্বামী-কামরুল হাসান, পিতা-মৃত সোনা মিয়া, সাং-হারং, থানা-চান্দিনা, এ/পি সাং-শাসনগাছা (দুলাল মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া), থানা-কোতয়ালী মডেল, জেলা-কুমিল্লা। আসামীদ্বয় সীমান্ত এলাকা হইতে উক্ত গাঁজা সংগ্রহ করিয়া নিজ হেফাজতে রাখিয়া ঢাকা নিয়া যাওয়ার জন্য কুমিল্লা শাসনগাছা বাসস্ট্যান্ডে যাইতেছিল। আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (১) এর টেবিল ৭ (ক) ধারায় কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা রুজু করা হইয়াছে।

Read 1239 times